বর্ণনা বাংলায়

“মেঘেদের দিন” বইটি “সাদাত হোসাইন” পিডিএফ আকারে অনলাইনে ছড়িয়ে দিয়ে সকল শিক্ষার্থীদেরকে বিনামূল্যে পড়ার সুযোগ করেছেন। মোবাইল, স্মার্ট-ফোন, কম্পিউটার অথবা ল্যাপটপ হতে বইটি ডাউনলোড করে আপনি সহজেই পড়তে সক্ষম হবেন। শিক্ষার্থীদের জন্য বইটি উন্মুক্ত করে দেয়ার-জন্যে লেখককে অসংখ্য ধন্যবাদ জানাচ্ছি কলি নিউজের পক্ষ হতে। যেকোনো টাইপের ইন্টিলিজেন্স ডিভাইসে বইটি সংরক্ষন করে> সকল পরিবেশেই পাঠকগণ পাঠ করতে চাইবেন বিঁধায় কলি নিউজের পোর্টাল হতে পাঠককে বইটি এখুনি ডাউনলোড করে নেয়ার জন্য অনুরোধ করা হচ্ছে <পোস্টের নিচের অংশ হতে। বইটি অনলাইনে এখুনই পড়তে পারেন সম্পূর্ণ ডিসপ্লে এনাবলের মাধ্যমে।

বইটি সম্পর্কে লেখকের বিবৃতিঃ

রাতে হঠাৎ করেই প্রচণ্ড গরম পড়েছে। চারপাশটা কেমন স্থির, নিস্পন্দন। কোথাও গাছের পাতা অব্দিও নড়ছে না। যেন প্রলয়ঙ্করী কোনাে ঝড়ের প্রস্তুতি নিচ্ছে প্রকৃতি। মারুফ খানিকটা সরে এল তানিয়ার কাছে। তানিয়া প্রায় সঙ্গেসঙ্গেই বলল, আমার খুব ভয় করছে মারুফ। মারুফ অবাক গলায় বলল, ভয় করছে কেন ? জানি না কিন্তু প্রচণ্ড ভয় করছে। আমি তােমাকে বােঝাতে পারব না। ধুর বােকা। এখানে ভয় কিসের ? তানিয়ার মুখ শুকিয়ে গেছে। সে শুকনা গলায় বলল, আমি জানি না। কিন্তু টের পাচ্ছি, কোনাে একটা ভয়াবহ বিপদ ঘটতে যাচ্ছে। কিসের বিপদ ? আমি জানি না। কিন্তু সত্যি বলছি ভয়াবহ কোনাে বিপদ। মারুফের আচমকা মনে হলাে তানিয়া যা বলছে তা সত্য। তানিয়ার ভয়টাকে আর অমূলক বা হেসে উড়িয়ে দেওয়ার মতাে কোনাে বিষয় মনে হচ্ছে না তার। বরং মনে হচ্ছে অমােঘ কোনাে সত্য। সে ঘাড় ঘুরিয়ে চারপাশে তাকালাে। মাথার ওপর অশরীরী উপস্থিতির মতাে দুটো আমগাছের ডাল কেমন ছড়িয়ে আছে। একটা বাদুর বা অন কোনাে নিশাচর পাখির ডানা ঝাপটানাের শব্দে আচমকা কেঁপে উঠল চারপাশ। ভেঙে খানখান হয়ে গেল রাতের নৈঃশব্দ্য। সেই শব্দে কেঁপে উঠল তানিয়াও। সে দুহাতে শক্ত করে জড়িয়ে ধরল মারুফকে। তারপর মারুফের কানের কাছে মুখ নিয়ে ভয়ার্ত কণ্ঠে বলল, আমি আর এখানে থাকব না মারুফ। এক মুহূর্তও না।

বইটি নিয়ে পাঠকদের মন্তব্যঃ

মেঘেদের দিনে-সাদাত হোসাইন বইয়ের দাম দেখে নেবার ইচ্ছা জাগছিল, যখন দেখলাম নায়কের নাম(ক্যাপশন পড়ে) আমার নামে, তখন কি আর না কিনে উপায় থাকে। সাদাত হোসাইনের যারা আমরা নিয়মিত পাঠক, তাদের অভ্যাস এমন যে আমরা তাঁর বই পড়ে, আবেগে উদ্বেলিত হব। কিছুক্ষন খোলা আকাশের দিকে চেয়ে থাকব। সেই কাজল কালো চোখের প্রেমে পড়ে থাকব। ছোট পরিসরে হবার দরুন তা ছিল না এতে। ঘটনা পরস্পরার দিকেই নজর ছিল বেশি। তবে মুল রহস্য অন্য জায়গায়। এই উপন্যাসটি আসলে অন্যদিন ঈদসংখ্যার জন্য। তাতে সাদাত হোসাইন যদি তাঁর সাধারণ ভঙ্গিতে লিখতেন তাতে এক ম্যাগাজিনে হত না। নিঃসন্দেহে। উপন্যাস টি উপভোগ্য। রোমান্সটাও। তিনি এক হিসেবে প্রেমের কাব্যিক হতে যাচ্ছেন দিনে দিনে। হয়তোবা ১০ বছর পরে হুমায়ুন আহমেদ এর মত কোন এক উপাধিও পেয়ে যেতে পারেন। বুড়ি চরিত্রটি সাংঘর্ষিক। বুড়ি তানিয়া এই সব চরিত্রের মাধ্যমে লেখক গ্রামীন পরিবেশের নিতান্ত সাধারন পরিবেশেও অনেক কিছু বলে গিয়েছেন।
প্রথমেই বলে নিই সাদাত হোসাইন এর লেখা আমার ভালো লেগেছে অর্ধবৃত্ত বইটা আমার খুব খুব পছন্দ হয়েছে। রিভিউ দেখে বই কেনা যে কতটা বোকামি মেঘেদের দিন বইটা পড়ে বুঝতে পেরেছি। মানে জাস্ট টাকা নষ্ট ছাড়া আর কিছুই না। আমি বুঝি না যারা এ বইয়ের পসিটিভ রিভিউ দিয়েছে তাদের কি পছন্দ বলে কোনো ব্যাপার নাই এত্ত বাজে বই না কনসেপ্ট ঠিক আছে লেখার স্টাইল ঠিক আছে মানে বইটা পড়ার দ্বারা বিন্দুমাত্র লাভ নাই শুধু টাকা খরচ করে সময় নষ্ট করা। যারা পসিটিভ রিভিউ দিছে তাদের একট উদ্দেশ্য থাকতে পারে যে,,,, আমার টাকা নষ্ট হইছে এখন আমি পসিটিভ রিভিউ দিয়ে আরেকজনের টাকা নষ্ট করি লস আমার একার হবে কেনো¿¿। লেখকের চেয়ে যারা পসিটিভ রিভিউ দিছে তাদের উপর রাগ বেশি লাগছে একজন লেখক ভালো লেখা সস্তা ধরনের লেখা দুটুই লিখতে পারেন কিন্তু ভালো রিভিউ দিয়ে এমন ফাজলামি করার মানে কি। আমারা স্টুডেন্টরা টাকা জমিয়ে একটা বই পড়ার পর যখন হতাশ হতে হয় তখন খুব কষ্ট লাগে
মেঘেদের দিনের নামের মতোই সাদাত ভাইয়া এই উপন্যাসে মেঘেদের মতো মুগ্ধতা ছড়িয়ে যাবেন । এবং সবথেকে ভালো কথা হচ্ছে এবার মূল্যটাও সবার হাতের নাগালে, সবাই অবশ্যই বই কিনবে আশা করছি । মেঘেদের দিন তাদের অসাধারণ লাগবে এবং বই কেনাটাকে সার্থক মনে হবেই ।

Description In English

The “Megher Din” book has been distributed online by the “Author” “Sahdat Hossain” in PDF format, giving all students the opportunity to read it for free. You will be able to read the book easily by downloading it from mobile, smart-phone, computer or laptop. Many thanks to the author on behalf of KOOLI.News for making the book available to students. By saving the book on any type of intelligence device> Readers will want to read in all environments, the reader is requested to download the book immediately from the portal of Kali News <from the bottom of this post. You can read the book online right now with full display enabled on your device.

Donwload Read This Book

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *